Anudip Foundation

ওয়েব ডিজাইন

ওয়েব ডিজাইনার বা ওয়েব ডেভেলপার হতে চান? তাহলে আমাদের ওয়েব ডিজাইন কোর্সটি আপনার জন্য।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং ওয়েব ডিজাইনিংয়ের মূল বিষয় দিয়ে শুরু আমাদের ওয়েব ডিজাইনিং কোর্সটি। এই কোর্সটি উন্নত, মোবাইল-বান্ধব এবং প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েবসাইট ডিজাইনিংয়ের ধারণা দিয়ে থাকে। সাধারণ এইচটিএমএল এবং সিএসএস ব্যবহার করে বেসিক ওয়েব ডিজাইনের সাথে পরিচয় করানো হয়, যেখানে শিক্ষার্থীদের এইচটিএমএল সম্পর্কে পূর্বের জ্ঞান না থাকলেও সমস্যা হবে না । এই কোর্সে এইচটিএমএল এবং সিএসএস কোড লিখে কার্যকর ওয়েব পেজ ডিজাইন শেখানো হয়। শুধু তাই নয়, নতুন ওয়েব পেজ বানানোর ক্ষেত্রে কোন পেজের পরে কোন পেজ থাকলে ভালো হবে, পেজের লেখা গোছানো, গ্রাফিক, ছবি এমনকী মাল্টিমিডিয়া বিষয়েও জ্ঞান দেওয়া হবে।

৳ ১০,০০০ ৳ ২,০০০
  • সংক্ষিপ্ত বিবরণ
  • কোর্স পার্টনার

একক তত্ত্বাবধানে সেরা ওয়েব ডিজাইনারদের কাছে শেখার সুযোগ পাওয়া যাবে লাইভ ক্লাস এবং ইন্টারেক্টিভ মডিউল এর মাধ্যমে। ওয়েব ডিজাইনিংয়ের সবচেয়ে নতুন টেকনোলোজি দিয়ে আমাদের কোর্স সাজানো হয়েছে, যা করে যে কেউ হতে পারবে একজন ভালো ওয়েব ডেভেলপার। আর বর্তমানে ওয়েব ডেভেলপারদের চাকরী এর বাজারে চাহিদা অনেক বেশি,তাই চাকরী ও ফ্রিলান্সিং এর সাথে জড়িত হওয়া যাবে খুবি সহজেই।

  • ফ্রন্ট-এন্ড ডিজাইনার
  • ওয়েব ডিজাইনার
  • ইউআই/ইউএক্স ডিজাইনার
  • এইচটিএমএল ওয়েব পেজের উপাদান
  • এইচটিএমএল কোড
  • ওয়েব ডিজাইনের রীতিনীতি
  • রং, গ্রাফিক, ছবি এবং মাল্টিমিডিয়া
  • ওয়েব পেজে ফর্ম বসানো
  • ওয়েব পেজের উপাদান তৈরিতে সিএসএস-এর ব্যবহার
  • বহু পৃষ্ঠা সম্বলিত ওয়েবসাইট প্ল্যান, ডিজাইন করা এবং বানানো

অনুদীপ ফাউন্ডেশন একটি অলাভজনক সংস্থা যা উন্নয়নশীল অর্থনীতিকে ডিজিটা্লাইজেশনের মাধ্যমে তরুণদের টেকসই ভবিষ্যত গড়া এবং ক্ষমতায়নে সাহায্য করে। ২০০৭ সালে এই ফাউন্ডেশনটির যাত্রা আরম্ভ হয়। ৯৭টি দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বর্তমানে ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১০টি প্রদেশে চলমান আছে।

ফাউন্ডেশনটির সুবিধাভোগীরা হলো পিছিয়ে পরা ও অভাবগ্রস্ত তরুণ এবং নারী যারা জাতিগতভাবে ও ধর্মীয় সংখ্যালঘু সমাজের, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সদস্য এবং রাজনৈতিক শরণার্থী, প্রতিবন্ধী কিংবা পাচারকৃত সংক্ষুব্ধ। বিশেষ পাঠ্যক্রমের মাধ্যমে বিভিন্ন ধাপে যুগোপোযোগী নানা ধরণের দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ দেয়া হয়, যা কিনা পরবরতীতে চাকরির ক্ষেত্রে অত্যন্ত কার্যকারী হয়। আজ পর্যন্ত আইমেরিটস-এ অনুদীপের ১০০০+ প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী নিযুক্ত হয়েছেন।

অনুদীপ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য বহুমুখীভাবে কাজ করতে বদ্ধপরিকর।